Categories
টেক বাংলা

ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগার?

ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগার নাকি? হ্যালো! আমাদের নতুন সিরিজে তোমাকে স্বাগতম। ইতিমধ্যে তুমি টাইটেল দেখেই বুঝতে পেরেছ আমি আজকে তোমাদের কি জানাতে যাচ্ছি। আজকে তোমাকে জানাচ্ছি ওয়েবসাইট তৈরীর জন্য কোন প্ল্যাটফর্ম বেটার। কোন প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে তুমি শুরু করবে ওয়েবসাইট তৈরি করার সিস্টেম গুলো অথবা তুমি যদি অ্যাডভান্স লেভেলের হয়ে থাকে সে ক্ষেত্রে কোনটা তোমার জন্য প্রয়োজন এই সমস্ত বিষয় নিয়ে তোমাদের সাথেই আজকে আমি আছি অমুক।

তাহলে চলো শুরু করি! ব্লগার ভালো নাকি ওয়ার্ডপ্রেস? এমন প্রশ্ন সচরাচর আমরা প্রায় সময় বিভিন্ন গ্রুপে দেখে থাকি আবার কিছু মানুষ এসে পার্সোনাল ইনবক্সে বলে ফেলে ভাই ব্লগার ভালো নাকি ওয়ার্ডপ্রেস। সবার কথা বিবেচনা করে সর্বশেষ পদ্ধতি হিসেবে আমাদের একটি আর্টিকেল তৈরি করা হয়েছে এ আর্টিকেল এর মাধ্যমে তোমরা বিস্তারিত জানতে পারবে।

ব্লগার এটি গুগলের একটি প্ল্যাটফর্ম এখানে ওয়েবসাইট করার জন্য হোস্টিং কিনতে হয় না গুগলের দেওয়া হোস্টিং কে ব্যবহার করে ওয়েব সাইট তৈরী করা যায় আবার চাইলে এখানে ব্লগার-এর সাবডোমেইনে ওয়েবসাইট করতে পারবে অর্থাৎ কোন ইনভেস্টমেন্ট ছাড়াই তুমি এখান থেকে ওয়েবসাইট করতে পারব। আবার তুমি চাইলে ব্লগারের এই হোস্টিং এর সাথে তোমার টপ ডোমেইন অ্যাড করতে পারবে। যেমন ডটকম, ডট নেট, ডট ওআরজি এককথায় টপ ডোমেইনগুলো এখানে এড করা সম্ভব।

তবে বিশেষ্য হচ্ছে যারা বিগেনার অর্থাৎ মাত্র শুরু করবে তাদের জন্য সাজেস্ট হচ্ছে ব্লগার প্লাটফর্ম যেহেতু এখানে কোন ইনভেস্ট করতে হচ্ছে না লাইফটাইম ফ্রি তে ব্যবহার করতে পারবে তাই শুরুর সময় তাকে ব্লগার থেকে শুরু করা উচিত। ব্লগারের লক্ষাধিক টেমপ্লেট রয়েছে ফ্রিতে যেগুলো ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় এবং সেই ওয়েবসাইটে অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ পাওয়া সম্ভব। অর্থাৎ ফ্রি ডোমেইন এবং ফ্রি হোস্টিং দিয়ে ওয়েবসাইট বানিয়ে ইনকাম করা সম্ভব।

ব্লগার কাদের জন্য!

যারা একদম বিগেনার মাত্র বেশি কে জানে অথবা ওয়েবসাইট সম্পর্কে এত বেশি ধারণা নেই তাদের জন্য এই প্লাটফর্ম অর্থাৎ তাদের জন্য ব্লগার প্ল্যাটফর্ম। যারা বিজ্ঞানের তারা মাত্র ব্লগার থেকেই শুরু করবে এবং এখান থেকেই তাদের শুরু করা উচিত। এখান থেকে শুরু করে তারা মোটামুটি জ্ঞান অর্জন করবে অথবা সকল বিষয়ে এখান থেকে কাজ করবে আস্তে আস্তে যখন জানলেওয়ালা হবে তখন তিনি চাইলে ওয়ার্ডপ্রেস অথবা অন্যান্য যে সিস্টেম রয়েছে সেগুলোতে মুভ করতে পারবে। এখন যদি হঠাৎ এসেই লারাভেল, পাইথন অথবা অন্যান্য যে সিএমএস আছে সেগুলোতে কাজ করতে চায় তাহলে কিন্তু সেটা কোনভাবেই সম্ভব নয়। ‌‌

তাই যারা বিগেনার তাদের জন্য অবশ্য সাজেস্ট থাকবে ব্লগার প্ল্যাটফর্ম এটির মাধ্যমে অনেক সুন্দর ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় এবং সেই ফ্রী ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবার ইনকাম করা যায়। বিশেষ করে ব্লগার কিন্তু ভালো রেংক করে কেননা এর মেইন ডোমেন ভালো রেংক পর্যায়ে থাকার জন্য এটির সাবডোমেইনে কাজ করতে গেলে ভালো একটা রেংকিং পাওয়া যায়। এছাড়া ডোমেইন-হোষ্টিং রিনিউ করার কোন সমস্যা থাকে না অর্থাৎ লাইফটাইম এটা ব্যবহার করতে পারবে।

ওয়ার্ডপ্রেস তাদের জন্য!

ওয়ার্ডপ্রেস তাদের জন্য যারা অ্যাডভান্স লেভেলের কাজ করে অর্থাৎ কোডিং করতে পারে না কিন্তু ওয়েবসাইট তৈরি করার চিন্তাধারা করছে কিংবা মোটামুটি বুঝে অথবা ওয়ার্ডপ্রেসের কোর্স শেষ করেছে। ওয়ার্ডপ্রেস কিন্তু একটি সিএমএস ধারা তৈরি তবে এটি নিচ থেকে তৈরি করতে হয় না। এখানে আপনি ডোমেইন-হোষ্টিং ক্রয় করে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন সিম্পল আপনার কনট্রোল প্যানেল থেকে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করে আপনার মত করে লক্ষ কোটি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন এবং থিম রয়েছে যার মাধ্যমে একটি কোয়ালিটিফুল এবং যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন।

এছাড়াও আরো বিভিন্ন সিএমএস রয়েছে যেগুলো আপনি শিখতে পারেন এবং সেগুলোর মাধ্যমে চাইলে করতে পারেন তবে সেগুলো নিজের মতো করে একদম সবকিছু করা সম্ভব। তবে হ্যাঁ ওয়ার্ডপ্রেস এর মধ্যেও সবকিছু করা সম্ভব তবে মোটামুটি কিছু একটা লিমিটেশন থাকে যেমন কিছু কিছু থিম রয়েছে যে সেই দিনগুলোতে অনেক কি সার ব্যবহার করা যায় না এরকম কিছু ঠিক থাকে আবার চাইলে এখানে আপনি কাস্টম থিম ব্যবহার করতে পারবেন নিজের মতো করে একটা থিম তৈরি করে সেটা এখানে ব্যবহার করা যেতে পারে।

তাহলে আপনি বুঝলেন তো ব্লগার ভালো নাকি ওয়ার্ডপ্রেস! আশাকরি মোটামুটি আপনার মধ্যে একটা আইডিয়া চলে এসেছে এর পরে এই ধরনের প্রশ্ন আশা করি আপনারা খুব বেশি একটা জিজ্ঞেস করবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.