Categories
অনলাইন ইনকাম

ব্লগিং করতেছেন কিন্তু সফলতা পাচ্ছেন না?

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা আপনারা যারা দীর্ঘদিন যাবৎ ব্লগিং করতেছেন কিন্তু সফলতা পাচ্ছেন না তাদেরকে আজকে আমি সহজেই সফল হওয়ার দারুণ একটি উপায় শেয়ার করব। আশা করি আপনারা যদি আমার এই দেখানো পথই অনুসরণ করেন বা আমি যেগুলো বলবো আপনারা সেগুলো বই পড়ি করে মেনে চলেন তাহলে ব্লগিং করে অন্তত প্রত্যেক মাসে ৩০ হাজার টাকার মত ইনকাম করতে পারবেন। আমি যে মেথটটি শিখেছি, আমি আমার এক গুরু যার কাছ থেকে শিখেছিলাম। তার নাম হলো রিয়াদ মিয়া। মেথটি একেবারে সিম্পল কিন্তু অনেকেই জানেনা আমি আপনাদেরকে এখন জানিয়ে দিব।

তো বন্ধুরা মেথটি শেয়ার করার আগেই বলে নেই এটি একেবারে সিক্রেট একটি মেথড এই সিক্রেট হয়তোবা আগে আপনারা জানেন নি অথবা কেউ আপনাদেরকে জানাই নি আসলে বিষয়টি হলো এই ম্যাচটা যদি কেউ একবার জানে সে কিন্তু অন্য কারো কাছে শেয়ার কখনোই করবেনা। আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চাই যদিও আমার গুরু রিয়াদ মেয়েটা কারো সাথে শেয়ার করতে না বলেছে, কিন্তু অনেকেই ব্লগিং করে সফল না হয় আমার মত টাকা পয়সা নাই মানে কাজ করার ইচ্ছা থাকে না। তাদের কথা ভেবে এই মেথডটি শেয়ার করছি।

তো বন্ধুরা এখন থেকে শুরু হচ্ছে মেইন পয়েন্ট:

আপনাদেরকে যা করতে হবে তা হল সর্বপ্রথম আপনাদের একটি ডোমেইন এবং একটি হোস্টিং লাগবে এটা সবাই জানেন তারপর আমি বললাম। একটি সুন্দর নামের ডোমেইন এবং হোস্টিং কেনার পরে আপনারা কি করবেন জানেন, একটি ভালো থিম দেখে আপনারা চাইলে ফ্রি থিম ব্যবহার করতে পারেন অথবা আপনারা জেপিএল জেথিমা আছে সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন তবে কখনোই ক্রাক বার্নাল থিম ব্যবহার করবেন না। এই থিম গুলো ব্যবহার করে খুব সহজেই একটা সুন্দর দেখতে ওয়েবসাইট বানিয়ে ফেলবেন।

ওয়েবসাইট বানানোর পর আপনারা সেখানে পোস্ট করবেন, এখন মনে প্রশ্ন আসতে পারে ভাই তাহলে আপনি আমাদেরকে শিখালেন টা কি?? আমরা যে পোস্ট করব বা ওয়েবসাইট বানাবো সেটা তো আমরা আগেই জানতাম। নানা ভাই একটু থামেন, এখন ওমেন মেথড শেয়ার করিনি। তো পোস্ট আপনারা কীভাবে করবেন আপনারা সাধারণত একটা বিষয়ে পড়াশোনা করে তারপরে সেই বিষয়ে একটু দক্ষ হয়ে সেটা সম্পর্কে লিখেন কিন্তু আমি আপনাদেরকে যে সিস্টেম টা শেখাব সেখানে আপনাদের এগুলো কোন কিছু লিখতে হবে না।

যেমন আপনি আপনার জীবনের কাহিনী মুখে বললেন এবং সেটা লিখা হয়ে গেলো এরকম একটা উপায় আপনি অনেক বড় বা ৬০০ সংখ্যার বেশি একটা আর্টিকেল লিখে ফেলবেন। এরকম কয়েকটা আর্টিকেল আপনি খুব সহজেই লিখতে পারবেন এই যে আমি যে আর্টিকেলটা লিখতেছি বা ভয়েস টাইপিং করতেছি এটা লিখতে বা ভয়েস টাইপিং করতে মাত্র কয়েক মিনিট সময় লেগেছে। এভাবে আপনারা অনেক গুলো পোস্ট করবেন তো অনেকগুলো পোস্ট করার পর আপনি যদি আপনার এই ওয়েবসাইটটি গুগল এডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করেন আশা করি আপনার এটা ঠিক ঠাক থাকলে এপ্রুভ হয়ে যাবে।

এপ্রুভ হয়ে গেলে আপনার ওয়েবসাইটটি আপনি অনেক দামে বিক্রি করে দিতে পারবেন। অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল ওয়েবসাইটের দাম ৮০০০ টাকা বা তারও বেশী হয়ে থাকে যদি আপনার ডোমেইন নেমটি সুন্দর হয়ে থাকে। এখন আপনি যদি প্রত্যেক মাসে অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভ করাতে পারেন তাহলে আপনি ২৪হাজার টাকা মাসে ইনকাম করতে পারবেন। এখন বলেন আপনাদের কাছে কি কথাটা খারাপ লাগলো যদি লাগে তাহলে আমাকে জানাবেন আমি এর থেকে ভালো মেথড রিয়াদ মিয়ার কাছ থেকে জেনে আপনাদেরকে জানাবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.