Categories
বাংলা নিউজ

মা-বাবার পরে শিক্ষার্থীদের মানুষ করে শিক্ষক

মোঃ আরমান হোসেন দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুর জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী বলেন
শিক্ষকতা হচ্ছে পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ পেশা। মা-বাবার পরে শিক্ষার্থীদের মানুষ করার সবচেয়ে বড় অবদান হচ্ছে শিক্ষকের। শিক্ষক হচ্ছে মানুষ গড়ার কারিগর। শিক্ষাদানের মহান ব্রত নিয়ে কাজ করেন একেকজন আদর্শ শিক্ষক। সবাই আদর্শ শিক্ষক হতে পারেন না।

এটি অনেক কষ্টসাধ্য ব্যাপার। স্বীয় জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণ করে তাদের যোগ্য করে গড়ে তোলেন একজন আদর্শ শিক্ষক। তিনি বলেন, মানুষ গড়ার কারিগর হলো শিক্ষক। শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের রোল মডেল বা আদর্শ পথপ্রদর্শক। একজন আদর্শ শিক্ষক ছাত্রছাত্রীদের জীবন আমূল বদলে দিতে পারেন।

শ্রেণিকক্ষের বাইরেও ছাত্রদের সঙ্গে একজন শিক্ষকের যোগাযোগ থাকা উচিত। কোনো ছাত্র হয়তো লেখালেখিতে ভালো, তাকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। কেউ ভালো গান গায়, কেউ খেলাধুলায় ভালো, কেউ বিতর্ক করতে পছন্দ করে। এসব বিষয়ে শিক্ষকদের গাইড করতে হবে। তাই ক্লাসরুম ও ক্লাসরুমের বাইরে; দুই জায়গাতেই শিক্ষকদের একটা বড় ভূমিকা থেকে যায়।

৫ অক্টোবর মঙ্গলবার বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে দিনাজপুর শিশু একাডেমী মিলনায়তনে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দিনাজপুর জেলা শাখার আয়োজনে শিক্ষক সমাবেশ ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী এসব
কথা বলেন।

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি আহসানুল হক মুকুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শামিউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আছলাম উদ্দীন, দিনাজপুর জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলা মধ্যমিক কর্মকর্তা মিরাজুল ইসলাম, দিনাজপুর জেলা শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক মাতলুবুল মামুন, সহ-সভাপতি বুনু বিশ্বাস, সদর উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি আব্দুল হামিদ প্রমুখ।

এ ছাড়া অন্যন্য শিক্ষকরা বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনে ছিলেন জুবলী হাই স্কুলের উপ সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ আকরাম হোসেন ও রাজারামপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ
হাসনা ইয়াসমিন। এর আগে সাংস্কৃতিক নৃত্য সঙ্গিত পরিবেশন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.